এসএস স্টীলের আইপিও লটারির ফল প্রকাশ

0
32

ডেস্ক : বিনিয়োগকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দিতে প্রকৌশল খাতের কোম্পানি এসএস স্টীল লিমিটেডের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আইপিও ড্র সম্পন্ন হয়েছে। আজ ২৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায়, রাজধানীর এজিবি কলোনি কমিটির সেন্টার, মতিঝিল, ঢাকায় এ কোম্পানির লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির চেয়ারম্যান জাবেদন ওগেনহাফেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, কোম্পানির সিএফও মোহাম্মদ গোলাম সবুর, কোম্পানি সচিব মো: মোস্তাফিজুর রহমানসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ডিএসই, সিএসই, বুয়েট এবং ইস্যু ম্যানেজারের প্রতিনিধিরা।

এস এস স্টীলের আইপিও লটারির ফল পেতে নিম্নে ক্লিক করুন:

স্টক ব্রোকার/মার্চেন্ট ব্যাংকের কোড

সাধারণ বিনিয়োগকারী

ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারী

প্রবাসী বিনিয়োগকারী

জানা যায়, গত ২৮ অক্টোবর থেকে ৭ নভেম্বর পর্যন্ত এ কোম্পানির আইপিও আবেদন সম্পন্ন হয়। এর আগে গত ১৭ জুলাই মঙ্গলবার বিএসইসির ৬৫১তম কমিশন সভায় এসএস স্টিলের আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়।

এসএস স্টিল লিমিটেড আইপিওর মাধ্যমে বাজার থেকে ২৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। কোম্পানিটিকে ১০ টাকা ইস্যু মূল্যের ২ কোটি ৫০ লাখ সাধারণ শেয়ার আইপিও এর মাধ্যমে ইস্যু করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত টাকা দিয়ে যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয় এবং স্থাপন, ভবন নির্মাণ এবং আইপিও বাবদ খরচ করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী সম্পদ মূল্যায়ন না করে প্রকৃত সম্পদ মূল্য(এনএভি) হয়েছে ১২ টাকা। আর সম্পদ মূল্যায়ন করে এনএভি হয়েছে ১৫.৩৫ টাকা। শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.২০ টাকা। আর ভারিত গড় হারে শেয়ার প্রতি ওয়েটেড এভারেজ হয়েছে ০.৮২ টাকা।

এদিকে, ২০১৭-২০১৮ হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, জুলাই’১৭ থেকে মার্চ’১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা হয়েছে ২২ কোটি ৫৯ লাখ ৭১ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০৩ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে প্রকৃত মুনাফা হয়েছিল ২২ কোটি ৪১ লাখ ৯৩ হাজার টাকা এবং ইপিএস ছিল ১.০২ টাকা।

এই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্যায়ন সহ শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬.১০ টাকা এবং সম্পদ মূল্যায়ন ছাড়া এনএভি হয়েছে ১৩.১০ টাকা। যা ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত বছরে সম্পদ মূল্যায়ন সহ এনএভি ছিল ১৫.৩৫ টাকা এবং সম্পদ মূল্যায়ন ছাড়া এনএভি ছিল ১২ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর অর্থ প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৮৪ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.৮৮ টাকা।

৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির মেয়াদি ঋণের পরিমাণ ৪৩ কোটি ৯৫ লাখ ৫৫ হাজার ৬৬৬ টাকা এবং স্বল্প মেয়াদি ঋণের পরিমাণ ১৩৯ কোটি ৬৪ লাখ ২৯ হাজার ৭৪১ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।