সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহর জন্য ছিল নিবেদিত প্রান সুহাদ বিএনপি-জামায়াতের আমলে ষড়যন্ত্রমূলক ক্রসফায়ারে নিহত

0
172

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিএনপি-জামায়াতের আমলে ষড়যন্ত্রের শিকার বরিশাল আওয়ামী লীগের নিবেদিত প্রান সুহাদকে র‌্যাবের হাতে ক্রসফায়ারে নিহত হয়।

বরিশালের বিএনপি-জামায়াতের শীর্ষ নেতা-কর্মীরা আ.লীগের নিবেদিতপ্রান সুহাদের কারনে বিভিন্ন কর্মকান্ডে বিভিন্ন কর্মকান্ডে সহযোগীতা করায় তাকে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্রসফায়ারের মাধ্যমে হত্যা করে বলে সন্তান হারানো ওই মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের দাবি। সুহাদ সম্পর্কে অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০০১ সালের বিএনপি-জামায়াতের সরকারের আমলে বরিশাল আ.লীগকে সহযেগীতা করছিল সুহাদের মতো সাহসী ২০/২৫ জন নেতা-কর্মীরা। সুহাদ ছিল সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহর আস্থাভাজন।

আ.লীগ নেতা সুহাদ বরিশাল আ.লীগকে সহযোগীতাকরাসহ সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহর জন্য ছিল নিবেদিত প্রান। বরিশালে বিএনপি-জামায়াতের অসস্তিকর অবস্থায় ছিল সুহাদের জন্য। কিন্তু সেই সুহাদকে বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে র‌্যাবের ক্রসফায়ারের মাধ্যমে হত্যা করে। খোজ নিয়ে জানা যায়, সুহাদের জন্য অসস্তিকর অবস্থায় বিএনপি-জামায়াত।

সুহাদকে তাদের দলগত শত্রু হিসেবে মনে করত। সেই আমলে বরিশাল মহানগর বিএনপি যদি আ.লীগকে কোনঠাষা করতে গেলে সুহাদ তা প্রতিহত করত। এরই ধারাবাহিকতা সুহাদের বিরুদ্ধে বিএনপি-জামায়াত সরকারের বরিশালের নেতারা একের পর এক মিথ্য মামলা দায়ের করে।

ওই মামলার অভিযোগ র‌্যাবের কাছে দিয়ে ক্রসফায়ারের মাধ্যমে সুহাদকে হত্যা করে জামায়াত-বিএনপি সরকার। অসহায় ও নির্যতিতা লোকেরা সুহাদের কথা মনে করে চোখের জল ফেলে।