নগরীর ভিআইপি জোনের পুকুরটি মশা উৎপাদন কেন্দ্র! উৎকট দূর্গন্ধ বিসিসি’র দূর্বলতায়

0
53

এম.এস.আই লিমন : বিসিসি’র পরিচ্ছন্নতা বিভাগের দূর্বলতায় নগরীর ভিআইপি জোনের একমাত্র পুকুরটি পরিনত হয়েছে উৎকট দূর্গন্ধ ও মশার উৎপাদন কেন্দ্রে।শুধু তই নয় নিয়মিত ময়লার ভাগার বানিয়েছে রেস্তোরাগুলো।

সূত্রমতে বরিশাল নগরীর প্রান কেন্দ্র রাজা বাহাদুর সড়ক সংলগ্ন বিসিসি’র ১০ নং ওয়ার্ডের পুকুরটি নিয়মিত পরিচ্ছন্নতার অভাবে ময়লার ভাগারে পরিনত হয়ে মশার উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে রয়েছে।গণপূর্ত বিভাগের পুকুরটি তাদের সার্কেল অফিসের পিছনে রয়েছে।নগরীর রাজা বাহাদুর সড়ক সংলগ্ন তেতুল তলার গণপূর্ত বিভাগের একটি পুকুরে ময়লা আবর্জনার স্তুপ হয়ে মাছ পচে দূর্গন্ধ ছড়িয়ে পরিবেশ দূষিত করছে।এতে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে এলাকার সহস্রাধিক নাগরীক।

এলাকাবাসীর অভিযোগ পুকুরটিতে বিসিসি’র পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা ময়লা আবর্জনা ডাস্টবিন থেকে তুলে পুকুরটিতে ফেলায় নর্দমায় পরিনত হয়েছে। তারা আরো জানায়, পুকুরটিতে এর আগে প্রতিদিন শতাধিক সাধারন মানুষ গোসল করা সহ সাংসারিক ধৌত কাজ এবং নামাজের জন্য মুসল্লীরা ওজু করতো। কিন্তু রাতের আধারে বিসিসি’র পরিচ্ছন্নতা কর্মিরা বিভিন্ন ডাস্টবিন থেকে ময়লা আবর্জনা তুলে তা যথা স্থানে না ফেলে পুকুরটিতে ফেলতে থাকায় বর্তমানে পুকুরটি সম্পূর্ণ ব্যবহার অনুপুযুগী হয়ে উঠেছে।ময়লা আবর্জনার কারনে পুকুরের মাছ পচে পানি নষ্ট হয়ে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এতে করে তাদের শিশুরা চরম ভাবে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে।

এছাড়াও পুকুরটি নিয়মিত পরিচ্ছন্নতার কাজ না হওয়ায় মশার বংশ বিস্তার ঘটছে। যে কারনে এলাকায় মশার উপদ্রব ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এলাকাবাসী বিসিসি’র মেয়র বরাবর এ সমেস্যা দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ পেতে নগর ভবনে গেলেও তাকে না পেয়ে ফিরে আসতে হয়েছে। পরিচ্ছন্নতা বিভাগে এ বিষয় অবহিত করা হলেও মাস কেটে গেলেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুকুরটির পানি সম্পূর্ণ কালো হয়ে ময়লার স্তুপে মশার চাষ হচ্ছে। পুকুরটি ঘিরে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কার্যালয় সহ হাজার লোকের বসবাস।

এ বিষয়ে বিসিসি’র ভেটেরিনারি সার্জন, পরিচ্ছন্নতা বিভাগের দায়িত্ব রত কর্মকর্তা ডাঃমোঃরবিউল ইসলাম দেশ জনপদকে জানায়, তিনি সরেজমিনে নগরীর সকল স্থান পরিদর্শন করছে। অভিযোগের বিষয়টি তার জানা নেই। তবে তিনি অতিসত্বর সরেজমিন পরিদর্শন করে ব্যবস্থা গ্রহন করবে।